বিজ্ঞাপন

আবারো বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণাবর্ত ! বৃষ্টি কবে কোথায় হবে দেখে নিন এক নজরে

আবহাওয়ায় বদল ঘটতে পারে সোমবার থেকে। রাজ্যে রবিবার পর্যন্ত শীতল হওয়ার প্রভাব থাকবে বলে এমনটাই জানা যাচ্ছে।

আবহাওয়ায় বদল ঘটতে পারে সোমবার থেকে। রাজ্যে রবিবার পর্যন্ত শীতল হওয়ার প্রভাব থাকবে বলে এমনটাই জানা যাচ্ছে। রবিবার পর্যন্ত আকাশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলেও সোমবার থেকে কোথাও মেঘলা আবার কোথাও বৃষ্টির পূর্বাভাস আছে বলে এমনটাই জানা যাচ্ছে। বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের দরুন সোমবার থেকে আকাশের পরিবর্তনের সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়ায় দফতর।

বিজ্ঞাপন

এই ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে পুজোর মধ্যেই । ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান ঘটবে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং আন্দামান সাগর এলাকায়। সাগরে এই ঘূর্ণাবর্ত শক্তি সঞ্চয় করে নিম্নচাপে পরিণত হবে। উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে এই ঘুর্ণাবর্ত শুক্রবার আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপে পরিণত হবে। নজর রাখা হয়েছে উত্তর বঙ্গোপসাগরেও যে নিম্নচাপটি আরও বেশি শক্তিশালী হচ্ছে কিনা। এই নিম্নচাপ অন্ধ-ওড়িশা উপকূলের দিকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে । তবে নিম্নচাপের প্রভাবে এর গতিপথ ঠিক কোন দিকে হয় বলে নজর রেখেছেন আবহাওয়াবিদরা। এই নিম্নচাপের প্রভাবে দখিনা বাতাসে ভর করে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে উপকূলের জেলাগুলিতে।পুজো,নবমী দশমী,বঙ্গোপসাগর,ঘূর্ণাবর্ত,বৃষ্টি

এছাড়াও ঘূর্ণাবর্ত রাজস্থান এবং পূর্ব বাংলাদেশের দিকেও রয়েছে। লাক্ষাদ্বীপ ও সংলগ্ন কেরালা উপকূলের ঘূর্ণাবর্ত নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব এবং পূর্ব মধ্য আরব সাগরে এই সিস্টেম আরও শক্তিশালী হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে । ২১ অক্টোবর মঙ্গলবার নিম্নচাপ গভীর থেকে অতি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। সম্ভাবনা রয়েছে যে এই নিম্নচাপটি পশ্চিম থেকে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হবে এবং আরব সাগর পেরিয়ে ওমানের দিকে যাবে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং এবং কালিম্পংয়ে হালকা বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার পর থেকে বৃষ্টি কমবে উত্তরবঙ্গে। ধীরে ধীরে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ কমবে এবং বৃষ্টিও কমে যাবে উত্তরবঙ্গে। বৃহস্পতিবার থেকে শুষ্ক আবহাওয়া উত্তরবঙ্গের পার্বত্য এলাকা ছাড়া বাকি অংশে থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়াবিদরা। ষষ্ঠী থেকে পুজোর দিনগুলিতে আকাশ পরিষ্কার থাকবে, কোনরকম বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই।

তবে এখনকার মতো দক্ষিণবঙ্গ মেঘমুক্ত। শীতকালীন প্রভাব রবিবার পর্যন্ত পশ্চিমের জেলায় বেশি অনুভূত হবে। দু-এক জায়গায় আংশিক মেঘলা আকাশ থাকতে পারে।কমছে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ । জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ক্রমশ কমতে থাকায় বৃষ্টির পূর্বাভাস কম দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। তাপমাত্রাও কিছুটা কমতে পারে দিনে এবং রাতে। হালকা শীতের সামান্য অনুভূতি জেলাগুলিতেও।

বিজ্ঞাপন

২৩ অক্টোবর নবমীর পুজোয় বেলা ও রাতের দিকে পশ্চিমবঙ্গে বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের প্রভাব পড়ার চলে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে । মাঝারি বৃষ্টি দশমীর দিনও হতে পারে বলে এমনটাই জানা গেছে। কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে মেঘলা আকাশ সহ খানিক বৃষ্টি হতে পারে বলে এমনটা সম্ভাবনা আছে ।

আজ আকাশ পরিষ্কার থাকবে ও বৃষ্টির ও কোনো সম্ভাবনা নেই । সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। গতকাল, বুধবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে আগামী ২৪ ঘণ্টায় গোটা কলকাতায় এমনটাই তাপমাত্রা থাকবে ।

বিজ্ঞাপন



Leave a Reply

বিজ্ঞাপন
Back to top button