বিজ্ঞাপন

বায়ুসেনা ঘাঁটিতে রহস্যজনক গর্ত! ‘সুড়ঙ্গ সন্দেহ’

বায়ুসেনা ঘাঁটির সীমান্ত প্রাচীর-লাগোয়া একেবারে ৪ ফুট ব্যাসার্ধের গর্তের খোঁজ মিলেছে। বায়ুসেনার তরফেও খবরটি নিশ্চিত করা হয়।

গাজিয়াবাদে (Ghaziabad) হিন্দোন বায়ুসেনা ঘাঁটির সীমান্ত প্রাচীর লাগোয়া একটি অদ্ভুত বড় গর্তের হদিশ মিলেছে। কিন্তু কীভাবে এই গর্ত হল, কেউ অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। সুড়ঙ্গ করারর উদ্দেশ্যে এই গর্ত করা হয়েছিল নাকি অন্য কোনও উদ্দেশ্য রয়েছে এর পেছনে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে এর তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

বায়ুসেনা ঘাঁটির সীমান্ত প্রাচীর-লাগোয়া একেবারে ৪ ফুট ব্যাসার্ধের গর্তের খোঁজ মিলেছে। বায়ুসেনার তরফেও খবরটি নিশ্চিত করা হয়। থানায় লিখিত অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে। সুড়ঙ্গ করারর উদ্দেশ্যে এই গর্ত করা হয়েছিল নাকি অন্য কোনও কারণে গর্ত হয়েছে, তা এখনও সঠিকভাবে স্পষ্ট নয়। বায়ুসেনার তরফে জানা গিয়েছে, গাজিয়াবাদে হিন্দোন বায়ুসেনা ঘাঁটির সীমান্ত প্রাচীর লাগোয়া একটি বড় গর্তের হদিশ মিলেছে। কীভাবে এই গর্ত হল, কেউ অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে কি না তা নিয়ে এখনও কিছু স্পষ্ট নয়।

এদিকে, গাজিয়াবাদের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার শুভম প্যাটেল বলেন, ‘১০ ডিসেম্বর স্থানীয় বাসিন্দারাই হিন্দোন বায়ুসেনা ঘাঁটির পাঁচিলের পাশে একটি গর্ত দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিয়েছেন। এটা ৪ ফুট পরিধির গর্ত ছিল। একটি এফআইআর দায়ের হয়েছে এবং সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন

আতঙ্ক ছড়িয়েছে আরেকটা কারণেও, হিন্দোন বায়ুসেনা ঘাঁটি লাগোয়া রয়েছে হিন্দোন বিমানবন্দর। স্বাভাবিকভাবেই ম বিমানবন্দরেও ভয় ছড়িয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনার ভয়ে বিমানবন্দর চত্বরে অতিরিক্ত নিরাপত্তা মোতায়েন করা হয়েছে। সতর্কতা জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। পুলিশ ও বায়ুসেনার অন্যান্য পদস্থ আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে এবং তদন্ত শুরু করেছেন। এছাড়াও মাটি চাপা দিয়ে গর্তটি বন্ধ করার কাজ শুরু হয়েছে। তবে এর পেছনে কারণ না জানা পর্যন্ত নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না কেউই।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন



Leave a Reply

বিজ্ঞাপন
Back to top button